Breaking News
Loading...
১৩ অক্টোবর, ২০১২

Info Post
বলা যায় জীবনের সূচনা হয় উত্তেজনা থেকে। প্রতিটি মানুষ, প্রতিটি প্রানী
জৈবিক উত্তেজনা অনুভব করে বলেই তারা সঙ্গী খুঁজে নেয়। পৃথিবীতে তারা
বংশধর রেখে যায়। কিছু কিছু জৈবিক উত্তেজনা থাকে সমলৈঙ্গিক। আর সেকারণে
সমকামিতা বলে একটা বিষয় আছে। পৃথিবীর ধর্মগুলো সমকামিতাকে কড়া করে
নিষিদ্ধ করে গেছে। আজকে আমার আলোচনার বিষয় সেটা না। আমি একটা মজার খবর
তোমাদের সাথে শেয়ার করব।


কনস্ট্যান্স জনসন একজন গোঁড়া ডেমোক্রাট। সম্প্রতি তিনি ওকলাহোমার গর্ভপাত
বিরোধী "পার্সনহুড" বিলের উপর একটি সংস্কার প্রস্তাব এনেছেন। যাতে বলা
হয়েছে, " মেয়ে লোকের ভ্যাজিনার বাইরে পুরুষের সিমেন বা শুক্রানু বিসর্জন
বা কোন প্রকার সংরক্ষণ বেআইনি হিসেবে গন্য হবে এবং একজন অজাত শিশুর আগমণে
বাধা হিসেবে বিবেচিত হবে।" ওই মহিলা ডেমোক্রেটের মাথায় কি ঢুকেছিল কে
জানে।

তার সংস্কার প্রস্তাব আইন হলে ওরাল সেক্স, পায়ুকাম, হস্তমৈথুন সব এক আইনে
নিষিদ্ধ হয়ে যাবে। সে ক্ষেত্রে সমকামীদের বিরুদ্ধে তাদের নতুন কোন আইনের
প্রয়োজন হবে না। জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রন এবং এইডস প্রতিরোধে সরকার সবসময় কনডম
ব্যবহারের উপর জোর দেয়। এমনকি মুসলিম প্রধান দেশে টিভিতে কনডমের বিজ্ঞাপণ
দেয়া বৈধ। কিন্তু এই আইন পাশ হলে ওকলাহোমাতে কনডম ব্যবহার বেআইনি হয়ে
যাবে। জনসন বলেন, তিনি এই সংস্কার প্রস্তাব এনেছেন কারণ এর দ্বারা একটি
ভ্রুণ গর্ভাবস্থা থেকেই পূর্ণ নিরাপত্তা ও মানবাধিকার পাবে।

এতো গেল বিদেশের খবর। পাগলাগুলোর খেয়ে দেয়ে কাজ থাকেনা। বসে বসে ঘোড়ার
ঘাস কাটে। কিন্তু নিজের দেশের কথা ভেবে খুব একটা স্বস্তি পাচ্ছি না। আমার
দেশের মন্ত্রীসভাতে নারী মিনিশটারের ঘাটতি নাই। যদিও সেখানে গুনের থেকে
বেগুন, আগুন এবং নির্গুনের সমাদর বেশী। এটা নিয়ে কথা বললে কপালে সেগুন
কাঠের বাড়ি জুটতে পারে। তাই এটা নিয়ে কথা বলব না। শুধু ভাবছি জাতীয় সংসদে
ঘুমিয়ে পড়া কোন মন্ত্রী যদি হঠাৎ ঘুম থেকে জেগে উঠে জাইগোটের মানবাধিকার
আদায়ে আইন করতে সোচ্চার হন তাহলে আমাদের উঠতি যুবক সমাজের কি হবে! আর আইন
টা কিভাবে বাস্তবায়িত হতে পারে সে বিষয়ে কি আপনার উর্বর মস্তিষ্ক কোন
সিগন্যাল দিচ্ছে?

খবর সুত্রঃ নার্ভ ডট কম nerve.com
oklahoma-democrat-jokingly-calls-for-anti-masturbation-bill

0 টি মন্তব্য:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন